দলত্যাগী তৃণমূল কর্মীদের সামাজিক বয়কটের ডাক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি তথা মালতীপুরের বিধায়ক আব্দুর রহিম বক্সীর

অবতক খবর,মালদা,৪এপ্রিলঃ—দলত্যাগী তৃণমূল কর্মীদের সামাজিক বয়কটের ডাক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি তথা মালতীপুরের বিধায়ক আব্দুর রহিম বক্সীর। মালদার কালিয়াচকের যদুপুরে প্রকাশ্য জনসভায় বক্তব্য রাখার সময় দল ত্যাগিদের সামাজিক বয়কটের ডাক দেন তৃণমূল বিধায়ক।

           তিনি বলেন, দশ বছর দলের সমস্ত কিছু ভোগ করল। আর দলের বিপদের সময় দল ছেড়ে পালিয়ে গেল।সত্যিকারের তৃণমূল থাকলে কেউ দল ত্যাগ করত না। সত্যিকারের তৃণমূল থাকতো তাহলে পদের লোভে কংগ্রেসে নাম লেখা তো না। এদেরকে সমাজে বয়কট করতে হবে বন্ধু। যে পথে হাঁটবে ধিক্কার দিতে হবে। যে পথে চলবে মুখে থুতু ফেলবেন। এই আবেদন আপনাদের কাছে থাকছে।

এদিন বক্তব্য রাখার সময় প্রদেশ কংগ্রেসের মুখপাত্র।কৌস্তুভ বাগচিকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করেন মালতিপুরের তৃণমূল বিধায়ক।তিনি বলেন, কৌস্তব বাগচী প্রথমবার তোমাকে ছাড় দেওয়া হয়েছে।এরপর এসে চোর চোর বললে বাটন চলবে তোমাদের ওপরে।মালদার মানুষ তোমাদের ছেড়ে কথা বলবে না। তুমি জেনে রাখো।

কংগ্রেসের প্রাক্তন বিধায়ক মুত্তাকিন আলম বলেন,জেলায় বিভিন্ন জায়গায় যোগদান কর্মসুচি চলছে। জারা যোগদান করছে তাদের বিভিন্ন ভাবে ভয় দেখানো হচ্ছে। তৃণমুলের জেলা সভাপতি বলছে বাটন দেওয়া হবে। আমরা অনেক দেখেছি বাংলায়। কেষ্ট মন্ডল অনেক বড় বড় কথা বলেছিলেন। আছ সেই কেষ্ট বাবু এখন জেলে আছে। আর যিনি এখন এই কথাগুলো বলছেন আসল কথা হল তাদের পায়ের তলার মাটি সরে যাচ্ছে। আমরা দেখি মালদা জেলা জুড়ে প্রতিদিন পায়ের তলার মাটি সরে যাচ্ছে এই জন্য তারা পাগল হয়ে গেছে ভুলভাল বকছে। এটাই হচ্ছে তাদের সংস্কৃতি। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় তারা ভুলভাল কথা বলছেন এটা নিয়ে আমাদের কোন ভয়ের কারণ নেই। আমরা বলছি মানুষ কিন্তু তাদের জবাব দেবে। পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে এরা একটা ভয়ের বাতাবরণ সৃষ্টি করতে চাইছে। কিন্তু বাংলার মানুষ মাওলার মানুষ পরিষ্কার বুঝতে পেরেছে এই তৃণমূলকে আমাদের উৎখাত করতেই হবে।