৩০শে সেপ্টেম্বরের পর আর চলবে না ২০০০ টাকার নোট

অবতক খবর,২০ মেঃ রিজার্ভ ব্যাংক ঘোষণা করেছে দু হাজার টাকার নোট তুলে নেওয়া হবে।নোট বন্দীর পর আবার সমস্যায় পরবে সাধারণ মানুষ।প্রতিবাদে শেওড়াফুলিতে রাষ্ট্রায়াত্ব ব্যাংকের সামনে বিক্ষোভ তৃণমূলের।

২০১৬ সালে এক হাজার ও পাঁচশো টাকার নোট বাতিল ঘোষণা করেছিল মোদি সরকার।রাতারাতি সেই নোট বাতিল সমস্যায় ফেলেছিল দেশবাসীকে।তার পরিবর্তে নতুন পাঁচশো ও দু হাজার টাকার নোট চালু করা হয়েছিল পরিস্থিতি সামাল দিতে।সাড়ে ছয় বছর পর সেই দু হাজার টাকার নোটও বাতিল করা হচ্ছে।এই ধরনের সিদ্ধান্ত তুঘলকি বলে মনে করে তৃণমূল।আজ শেওড়াফুলিতে স্টেট ব্যাংকের সামনে হাতে পোস্টার নিয়ে বিক্ষোভ দেখায় জয়হিন্দ বাহিনী।বৈদ্যবাটি পুরসভার তৃণমূল কাউন্সিলর ও কর্মিরা উপস্থিত ছিলেন এই বিক্ষোভ মিছিলে।।

বিজেপি শ্রীরামপুর সাংগঠনিক জেলা সভাপতি মোহন আদক বলেন নোট বন্দী সাধারণ মানুষের জন্য ভালো হয়েছে।যাদের কাছে অবৈধ্য বা বেহিসাবি টাকা আছে তারা বুঝবে সরকারের সাথে।সাধারণ মানুষ কোনদিন সমস্যায় পড়েনি নোট বন্দীর কারনে।দু হাজার নোটের জন্য চার মাস সময় দেওয়া হয়েছে জমা দেওয়ার জন্য।সাধারণ মানুষ অসুবিধায় পরবেনা।।