সোনারপুরের একটি সোনার দোকানে দুঃসাহসিক ডাকাতি

অবতক খবর,13/10/2023,সোনারপুর: সোনারপুরের একটি সোনার দোকানে দুঃসাহসিক ডাকাতির ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা সোনারপুরের বারেন্দ্র পাড়াতে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার রাতে সোনারপুরের ওই সোনা দোকানে দুটি বাইকে করে চারজন দুষ্কৃতী আগ্নেয়াস্থ নিয়ে তারা ঐ সোনা দোকানে ঢোকে। ব্যাপক লুটপাট চালায় সোনা দোকানে ।

ডাকাতিতে বাধা দিলে বন্দুক দিয়ে সোনা দোকানের মালিক ও বেশ কয়েকজনকে বেধড়ক মারধর করে দুষ্কৃতীরা। ডাকাতিতে বাধা দেওয়াতে দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত হয় ওই সোনা দোকানের মালিক। বন্দুকের হাতল দিয়ে ওনার মাথা ফাটিয়ে দেয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। ওই সোনা দোকানে লুটপাট চালিয়ে এরপর দুষ্কৃতীরা দুটি বাইকে করে এলাকা থেকে চম্পট দেয়। এরপর স্থানীয়রা দুষ্কৃতীদের আটকানোর চেষ্টা করলে শূন্যে গুলি গুলি চালাতে থাকে দুষ্কৃতী। এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়। ওই আভিজাত্য সোনা দোকানের মালিক সজন পাড়ুই তিনি জানান ,আমার সবকিছু শেষ হয়ে গেল । কিছুই অবশিষ্ট রাখিনি দুষ্কৃতীরা। পুজোর মৌসুমের জন্য দোকানের ক্রেতাদের ভিড় ছিল। সেই সময় দুটি বাইকে করে প্রায় চারজন দুষ্কৃতির দোকানে ঢোকে দুজন দুষ্কৃতীদের হাতে নষ্ট ছিল দেখি দোকানে থাকা প্রায় লক্ষাধিক টাকার গয়না ও কয়েক লক্ষ টাকা নগদ টাকা লুট করে দুষ্কৃতীরা। দুষ্কৃতীদের বাধা দিলে আমাকে বেধড়ক মারধর করে এমনকি বন্দুক দিয়ে আমার মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে।

এরপর আমি চিৎকার শুরু করেছি, আমার চিৎকার শুনে স্থানীয় বেশ কয়েকজন সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসতে দুষ্কৃতীরা বাইকে করে পালিয়ে যাই গুলি ছুটতে ছুটতে। এই দুঃসাহসিক ডাকাতের ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে এলাকাবাসীরা। এই দুঃসাহসিক ঘটনা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ইতিমধ্যেই এসে পৌঁছেছে সোনারপুর থানার পুলিশ। সোনারপুর থানার পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এই দুঃসাহসিক ডাকাতের ঘটনার তদন্ত শুরু করে দেয়াও হয়েছে। রাস্তার সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সিসিটিভি ফুটেজ থেকে দুষ্কৃতীদের চিহ্নিতকরণের কাজ চালানো হচ্ছে।