অবতক খবর,৩০ অক্টোবর,পূর্ব মেদিনীপুর: সেপটিক ট্যাংক থেকে মহিলার বস্তাবন্দি দেহ উদ্ধার। চন্ডীপুর থানার কান্ডপসরা এলাকার ঘটনা। মৃতার নাম পূজা কুমারী বাড়ি হাওড়া। গতকাল রাতে এলাকাবাসীরা দুর্গন্ধ পেয়ে থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে দেহ বাড়ির পেছনে সেপটিক ট্যাঙ্কের ভেতর থেকে বস্তাবন্দি উদ্ধার করে।

জানা গেছে দশমীর দিন থেকে নিখোঁজ ছিলেন ওই মহিলা। ওই এলাকার বাসিন্দা দিল্লু মাইতির সাথে কলকাতার একটি রেস্টুরেন্টে কর্মসূত্রে ওই মহিলার পরিচয় হয় ও পরবর্তীতে বিয়ে হয়। সেই থেকে মাঝেমধ্যেই ওই মহিলা দিল্লুর কান্ডপসরার বাড়িতে আসতেন। অপরদিকে দিল্লু মাইতির প্রথমপক্ষের স্ত্রীও এখানেই থাকতেন। আগেও একাধিকবার দিল্লুর পথমপক্ষের স্ত্রীর সাথে মৃতা মহিলার ঝামেলা হয়েছিল বলে এলাকাবাসীরা জানান।

দশমীর পর থেকে বাড়িতে আর কাউকেই দেখা যায়নি। এলাকাবাসীদের অনুমান পূজা কুমারী নামে ওই মহিলাকে খুন করে প্রমান লোপাটের জন্য বস্তাবন্দি করে সেপটিক ট্যাংক এ ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। মৃতার একটি শিশুকন্যা ও রয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর। ঘটনার তদন্তে নেমেছে চণ্ডীপুর থানার পুলিশ।