সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যু থেকে নেপতিজাম, ড্রাগস হয়ে এবার সংসদে পৌছাল মামলা

অবতাক খবর, সংবাদদাতা ::  সিনেমার নায়ক সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু মামলার তদন্ত এখন একে একে করে এবার ড্রাগসের দিকে মোড় নিয়েছে। সোজা কথায় জাগ চমক এই ফিল্ম দুনিয়ার সঙ্গে অন্ধকার জগতে সম্পর্ক খুবই গভীর ভাবে জড়িয়ে রয়েছে। ড্রাগস মামলায় ইতিমধ্যেই রিয়ার ভাইসৌভিক চক্রবর্তী ও পরে স্বয়ং রিয়া চক্রবর্তী গ্রেপ্তার হয়ে জেলে রয়েছেন।

ড্রাগস মামলায় জড়িত থাকার গল্প তদন্ত যখন এলে তখন একে একে করে রিয়া নাকি আরও আঠেরো জন ফিল্ম তাড়কার নাম জানিয়েছেন যারা নিয়মিত ড্রাগ সেবন করেন। এনসিবি অর্থাৎ নারকটিকস কন্ট্রোল বিউরো ইতিমধ্যে ছয়জনকে গ্রেপ্তার করে ফেলেছে। রিয়াজ চক্রবর্তীর গ্রেপ্তারের পর বলিউডের বেশ কয়েকজন নায়ক-নায়িকারা আতঙ্কে রয়েছেন।

অন্যদিকে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু রহস্য ভেদ করতে ইতিমধ্যে এফআইআর দায়ের করে সিবিআই তদন্ত চালাচ্ছে। এক সুশান্তের মৃত্যু দ্বিতীয় ড্রাগসের মামলা দুই মিলিয়ে বলিউডে এখন হই হই কান্ড। ইতিমধ্যে বিভিন্ন নামিদামি ডিরেক্টর প্রোডিউসার দেখে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চালিয়েছে সিবিআই।

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু রহস্য এ যেন মাছ ধরতে কেউটে বেরিয়ে আসার মত অবস্থা। মৃত্যু থেকে প্রথমে নেপটিজম তার পর প্রেম হত্যা ড্রাগস আর না জানে কি কি বেরিয়ে আসবে।

আজ রাজ্য সভাতে সমাজবাদী পার্টির সাংসদ জয়া বচ্চন জিরো আওয়ারসে বলেন যে কিছু লোক সমস্ত ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির ছবি খারাপ করার চেষ্টা করছে। তিনি আরো বলেন যে একজন সাংসদ যিনি নিজে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সাথে সম্পর্ক রেখেছেন তিনি সেই লোকসভার সাংসদ এর জন্য লজ্জিত। উল্লেখ্য লোকসভা বিজেপি সাংসদ রবি কিসান লোকসভা তে ফিল্ম ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির লোকেদের ড্রাগসের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। রবি কিষান দাবি জানান যে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে যারা ড্রাগস এর সঙ্গে জড়িত বা ড্রাগ সেবন করছেন তাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করা প্রয়োজন।

অন্যদিকে ড্রাগসের মামলা উড়তেই কঙ্গনা রানাওয়াত পরিষ্কার করে জানিয়ে দেন যে বলিউডে 99% নায়ক নায়িকাদের সম্পর্ক এই নেশা জগতের সঙ্গে রয়েছে। কঙ্গনা রানাওয়াত একের পর এক তোপ দেগেছেন বহু বড় বড় ডিরেক্টর প্রোডিউসারদের বিরুদ্ধে।

এদিকে কঙ্গনা রানাউতের এই অভিযোগে কাঠগড়ায় দাঁড়িয়েছে মহারাষ্ট্র সরকার। কঙ্গনার মুখ বন্ধ করতে না পেরে অবশেষে মহারাষ্ট্র সরকার তার সাজানো গোছানো অফিস ঘর গুড়িয়ে দেয়।