সল্টলেকে শুভ প্রসন্নের বাড়িতে কুনাল ঘোষ

অবতক খবর,১১ মেঃ আজ সল্টলেকে শুভ প্রসন্নের বাড়িতে এলেন কুনাল ঘোষ। নিষিদ্ধ কেরালা ফাইল নিয়ে একটি মন্তব্য করেছিলেন শুভা প্রসন্ন। সেই বিষয় নিয়ে আলোচনা করতেই কুনাল ঘোষ তার বাড়িতে আসেন। দীর্ঘক্ষণ তাদের দুজনের মধ্যে আলোচনা হয়।

শুভ প্রসন্নের বাড়ি থেকে বেরিয়ে কুনাল ঘোষ জানান,

কোন একটা বিষয়ে কালকে শুভদা কিছু বক্তব্য রেখেছিলেন। তার পরিপ্রেক্ষিতে আমার কোন কোন বক্তব্য ছিল। আজ সকালে শুভদা আমায় ফোন করেনএবং সুবেদার একটা পেন্ডিং নিমন্ত্রণ রয়েছে অনেক দিন ধরে। আর্টস একরে যাওয়ার ছিল বাড়িতেও চা খাওয়ার ছিল এই নিয়ে আমাদের মধ্যে কথা হয়। আমার মনে হয় এই ধরনের ভুল বোঝাবুঝির কোন বিষয় নেই।ওনার একটা আঙ্গিকের বিষয় কিন্তু সেটা দশ রকম ভাবে ব্যাখ্যা করতে করতে একটা যেন মনে হচ্ছে এটা বনাম ওটা এরকম কোন বিষয় নেই। শুভাদা সিনিয়র মানুষ এবং দীর্ঘদিন ধরে মমতাদির সঙ্গে রয়েছেন এবং পরিবর্তনের আন্দোলনে অনেক দিন আগে থেকে শুভদা নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিত্ব করেছেন নেতৃত্ব দিয়েছেন। ফলে আমার মনে হয় এটা নিয়ে খুব একটা বাড়তি ভুল বোঝাবুঝি নেই। শুভদার সাথে বসলে কথার বিষয়ের কোন অভাব নতুন নতুন কত বিষয় নিয়ে কথা হলো।কোন একটা আঙ্গিক থেকে শুভদা কোন একটা কথা বলেছিলেন। কিন্তু শুভদা পুরোদস্তুর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চিন্তাভাবনা প্রশাসক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে প্রশাসক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে কিছু সিদ্ধান্ত নিতে হয়। যখন এরকম ধরনের কোন একটা স্পর্শকাতর বিষয়ে কেউ সমাজে ভেদাভেদ করতে চায় তখন আপত দৃষ্টিতে দেখে যা মনে হয় তার বাইরেও প্রশাসককে কিছু সিদ্ধান্ত নিতে হয়। আমার মনে হয় এই নিয়ে কোন দ্বিধাদ্বন্দ্ব দূরত্ব সেই ধরনের বিতর্কের আর কোন অবকাশ থাকছে না।

শুভ প্রসন্ন বলেন,একেবারে অন্য কিছু ব্যাপার নয় শুধু এই বিষয়ে আলোচনা হল। আমি যা বলেছি কোন কিছু ভুল বলিনি। আমার মনে হয় সিদ্ধান্ত বদল করার মতো কিছু নয়। আমাদের যে সুন্দর সম্পর্ক তাতে যদি মনে হয় কিছু আমার ভুল বা তার ভুল সেটা আলোচনা করে ঠিক করে নিতে পারি।আর ভালোবাসা থাকলে পরে একটু আধটু সমালোচনা কোন অসুবিধা হয় না।এমনিতেই কদিন পরে ইউটিউবে লোক দেখবে। এবং এর ফলে অনেক ব্যবসা ও বেশি বেড়েছে। আজই তো শুনছিলাম ৮ কোটি টাকার ব্যবসা করেছে।