অবতক খবর,২৯ ডিসেম্বর: রাজ্য সড়ক থেকে যুবকের দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ালো এলাকাজুড়ে। ঘটনায় চাঞ্চল্য মানিকচক থানার নাজিরপুর এলাকাজুড়ে। দুর্ঘটনায় মৃত্যু বলে দাবি পরিবারবর্গের।ঘটনায় দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠাই মানিকচক থানার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে মৃত যুবকের নাম পিন্টু মণ্ডল (২৫)। নাজিরপুরের বেগমগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা। পেশায় ট্রাক্টরে লেবারের কাজ করতেন। মঙ্গলবার গভীর রাতে মানিকচক থানার পুলিশ নাজিরপুর স্ট্যান্ড এলাকায় রাজ্য সড়কের ধার থেকে যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করে।

পরিবার সূত্রে জানা যাচ্ছে, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে বের হয় শ্মশানে যাওয়ার নাম করে। ট্রাক্টরে কাজ শেষ করে রাতে বাড়ি ফিরছিলেন। তবে রাতে আর বাড়ি ফেরেননি। গভীর রাতে নাজিরপুর স্ট্যান্ড এলাকায় স্থানীয়রা মৃত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন ওই যুবককে।

পরিবারের অভিযোগ, ট্রাক্টরের কোনো কারণবশত চাপা পড়ে তার মৃত্যু হয়েছে। তবে ট্রাক্টর চালক রবি মন্ডল পরিবারবর্গ কে খবর না দিয়ে দেহ ফেলে পালিয়ে যায়। স্থানীয় মারফত খবর পেয়ে দেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। যদিও গোটা বিষয় নিয়ে কারও বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ নেই পরিবারবর্গের বলে চালাচ্ছেন তারা। দূর্ঘটনাবশত এই মৃত্যু বলে দাবি পরিজনদের। বুধবার দেহ ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায় মানিকচক থানার পুলিশ। তবে যুবকের এমন মর্মান্তিক মৃত্যুতে শোকোস্তব্ধ পরিবারবর্গ।