অবতক খবর,৯ জুলাই: খানাকুলের মুচিঘাটা কাঠের সেতুর বেহাল অবস্থা দেখেও লক্ষ্য নজর নেই খানাকুল ২ পঞ্চায়েত সমিতির । এমনটাই অভিযোগ এলাকার মানুষের ক্ষোভ প্রকাশ এলাকাবাসীর । শাল বললাম না পাল্টানোর অভিযোগ, তাপ্পি দেওয়ার কাজ হয় মাঝে মাঝে, কিন্তু সঠিক কাজ হয়না ।

কাঠের ব্রিজ টি দীর্ঘদিনের অর্থাৎ সিপিআইএমের আমলে তৈরি । বর্তমানে ফেরিঘাট যাতায়াত ফ্রি আছে , যেটি খানাকুল বিধায়ক সুশান্ত ঘোষের সহযোগিতায় হয়েছে । সাধারণ মানুষ তারা এইরকম ফ্রি চায়না, কারণ টাকা নিলে তার একটা রক্ষনাবেক্ষন থাকবে বলে তাদের ধারণা । বর্তমানে চার চাকা গাড়ির যাতায়াত বন্ধ হয়ে যাবার কারণে বাজারের সবজি গাড়ি ,দুধের গাড়ি সহ জরুরি পরিষেবা ব্যাহত হচ্ছে । কতদিনে আবার কাঠের সেতুটি যাতায়াত এর উপ যুক্ত করে তুলবে খানাকুল ২ পঞ্চায়েত সমিতি সেই নিয়ে সন্দেহ এলাকার মানুষের ।

টোটো, টলি ,ইঞ্জিনভ্যান, চার চাকা গাড়ি যাতায়াত বন্ধ হয়ে গিয়ে নাজেহাল মানুষজন । তাহলে কি খানাকুল ২ পঞ্চায়েত সমিতির এই কাজে ব্যার্থ ! খানাকুল ২ পঞ্চায়েত সমিতি দায়িত্ব নিলেও কেনো এখনো মানুষের যাতায়াত করতে পারছে না, সেই বিষয়ে উঠছে বিভিন্ন মহলে প্রশ্ন ।

ঘটনাস্থল থেকে জানাচ্ছেন এলাকার সাধারণ মানুষ এবং অন্যদিকে হুগলি জেলা পরিষদের সদস্য কালিপদ অধিকারী ।। যদিও খানাকুল ২ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান ভারী যান বাহন যাওয়ার ফলে কাঠের সেতু বসে গেছে , দ্রুত মেরামত করার চেষ্টা করছি ।