মাংসে কীটনাশক মিশিয়ে এক ব্যক্তির পোষা কুকুরকে মেরে ফেলার অভিযোগ তুলে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করল প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে

অবতক খবর,৩ ফেব্রুয়ারি: মাংসে কীটনাশক মিশিয়ে এক ব্যক্তির পোষা কুকুরকে মেরে ফেলার অভিযোগ তুলে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করল প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। শনিবার ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়া থানার কালাগছ এলাকায়। জানা গিয়েছে চোপড়ার কালাগছ এলাকার বাসিন্দা রাজেশ সরকার তার বাড়িতে একটি পোষো কুকুর ছিল। অভিযোগ ভূপেন সিংহ ও তার স্ত্রী গত দুই তিন ধরে এলাকার কুকুর দের মেরে ফেলার জন্য মাংসে কীটনাশক মিশিয়ে রাস্তার কুকুরদের খেতে দিতো।

এই বিষয়টি রাজেশ সরকারের পরিবারের সদস্যদের নজরে পড়লে ভূপেন সিংহ কে বাড়ন করে ছিল। কিন্তু তিনি কিছু না শুনে আবার মাংসে কীটনাশক মিশিয়ে রাস্তায় ফেলে রেখে ছিল। সেই কীটনাশক মেশানো মাংস খেয়ে মৃত্যু হয় রাজের সরকারের বাড়ির পোষা কুকুরের। এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। রাজেশ সরকার অভিযুক্ত প্রতিবেশী ভূপেন সিংহ ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে চোপড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অন্যদিকে ঘটনার পর থেকেই পলাতক অভিযুক্তরা। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে পৌছায় চোপড়া থানার পুলিশ। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ