ব্লক তৃণমূলের সভাপতি পরিবর্তনের পরেই অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেস কার্যালয়ে তালা!

অবতক খবর,২০ জানুয়ারি: ব্লক তৃণমূলের সভাপতি পরিবর্তনের পরেই অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেস কার্যালয়ে তালা! এমনই অভিযোগ তুলে দলীয় কর্মীদের সাথে নিয়ে অঞ্চল কার্য্যালয়ের তালা ভেঙে প্রবেশ করলেন অঞ্চল কনভেনার সহ কর্মীরা।যদিও নতুন ব্লক সভাপতির দাবি,আমি সদ্য দায়িত্ব পেয়েছি তাকে কুলসিত করার জন্য বিরোধীদের মদতে কেউ এমনটা করেছে,দলের মধ্যে কোনো উপদল বা গোষ্ঠী নেই। ঘটনায় শাসকদলকে কটাক্ষ বিজেপির।

হাতুড়ি দিয়ে তৃণমূলের অঞ্চল কার্যালয়ের তালা ভেঙে প্রবেশ করল অঞ্চল তৃণমুলের কনভেনার সহ তৃণমূলের কর্মী সমর্থকেরা। অভিযোগ,এই অঞ্চল কার্য্যালয়ে তারা আগের ব্লক সভাপতি প্রসূন ঘোষের নেতৃত্বে দলের সমস্ত কার্য্যকলাপ করতো। কিন্তু ব্লকে সভাপতি পরিবর্তন হয়েছে,নতুন ব্লক সভাপতি হওয়ার পরে অঞ্চল দলীয় কার্য্যালয়ে তালা পড়েছে।কিন্তু কে তালা দিয়েছে মুখে না বললেও অভিযোগের তীর নতুন ব্লক সভাপতির দিকেই। তাই অঞ্চল কনভেনার ও অন্যান্য তৃণমূল কর্মী সমর্থকেরা শুক্রবার দলীয় কার্যালয়ে এসে তালা দেখে হাতুড়ি দিয়ে তালা ভেঙে প্রবেশ করল ভেতরে।ঘটনা পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোনা ২ নম্বর ব্লকের বান্দিপুর ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের ঝাঁকরা এলাকায় থাকা বান্দিপুর ১ নম্বর অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেস কার্য্যালয়ের।জানাযায়,চলতি মাসের ১৭ ই জানুয়ারি চন্দ্রকোনা ২ নম্বর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি প্রসূন ঘোষকে সরিয়ে ব্লক সভাপতি করা হয়েছে হীরালাল ঘোষকে।আর সে ব্লক সভাপতি হওয়ার পর আজ হঠাৎ করে বান্দিপুর ১ নম্বর অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেসের কনভেনার অচিন্ত্য সিং দুপুর নাগাদ অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেস কার্যালয়ে উপস্থিত হন কর্মী সমর্থকদের নিয়ে। অচিন্ত্যর অভিযোগ তিনি গিয়ে দেখেন দলীয় কার্যালয়ে দুইটি তালা লাগানো তারপরেই তিনি দলীয় কার্যালয়ের তালা ভেঙে দলীয় কার্যালয়ে প্রবেশ করে।অচিন্ত্যর অভিযোগ নতুন ব্লক সভাপতি হওয়ার পর গত দুদিন অঞ্চল কার্যালয়ে তালা লাগানো হয়েছে।যদিও এবিষয়ে নতুন ব্লক সভাপতি হীরালাল ঘোষ জানান,আমি সদ্য দায়িত্ব পেয়েছি তাকে কুলসিত করার জন্য বিরোধীদের মদতে কেউ এমনটা করেছে গোষ্ঠী কোন্দল খাড়া করার জন্য করছে।দলের মধ্যে কোনো উপদল বা গোষ্ঠী নেই।

আর এঘটনায় শাসকদলকে তীব্র কটাক্ষ বিজেপির।বিজেপির আরামবাগ সাংগঠনিক জেলার সম্পাদক সুদীপ কুশারির।