বারাসত বিদ্যাসাগর ক্রীড়াঙ্গনে ঘাসের মাঠ হবে,মাঠ পরিদর্শনে এসে বললেন রাজ্যের ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস 

অবতক খবর,১৯ মে,বারাসত :দীর্ঘদিন সমস্ত খেলা বন্ধ ছিলো বারাসত বিদ্যাসাগর ক্রীড়াঙ্গনে।সাংবাদিকদের একাধিক প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় প্রশাসনিক কর্তা থেকে মন্ত্রী মহাদয়কে।সাম্প্রতিক এক অনুষ্ঠানে এসে রাজ্যের ক্রীড়ামন্ত্রী থেকে বনমন্ত্রী কথা দিয়েছিলো খুব দ্রুত বিদ্যাসাগর ক্রীড়াঙ্গনকে পুনরায় খেলার উপযোগী করে তোলা হবে।যেমন কথা তেমন কাজ,বৃহস্পতিবার বারাসত ক্রীড়াঙ্গনে পরিদর্শনে এলেন রাজ্যের ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস সহ বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক,খাদ্য ও সরবরাহ মন্ত্রী রথীন ঘোষ,সেচ মন্ত্রী পার্থ ভৌমিক, আইএফএ সভাপতি অজিত বন্দ্যোপাধ্যায়, বিধায়ক নারায়ণ গোস্বামী, বারাসত পুরসভার চেয়ারম্যান অশনী মুখোপাধ্যায় সহ প্রশাসনিক কর্তারা।

জেলাশাসক শরত কুমার দ্বিবেদী উপস্থিতিতেই এই বৈঠক।স্টেডিয়াম আই এফ এ অধিনে হয়ে যাওয়ার পর থেকে লীগের খেলাগুলি চালু হয়েছিলো।শেষ আইলীগের আগের আইলীগের খেলা চলাকালীন মোহনবাগানের কয়েকটি খেলোয়াড় আহত হয়,তার কারণ হিসাবে উঠে আসে মাঠের পরিকাঠামো। যে কৃত্রিম ঘাসে মাঠ তৈরি করা হয়েছিলো অর্থাৎ অ্যাস্ট্রোটার্ফ দিয়ে।সেই কৃত্রিম ঘাসে কেউ খেলতে গিয়ে পড়ে গেলে গুরুতর আঘাত লাগতে পারে খেলোয়াড়ের।সেই আইলীগেই শেষ খেলা,তারপর থেকেই বন্ধ খেলা।এমনকি মাঠ কেটে ফেলার অভিযোগও ওঠে বৃহস্পতিবার বৈঠক শেষে সিদ্ধান্ত নতুন করে ঘাসের মাঠ তৈরি হবে,এবং যারা এই মাঠ কেটেছে তাদেরকেও নতুন কমিটির মারফৎ চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়া।মাঠকে পুনরায় খেলার উপযোগী করার দায়িত্বভার জেলাশাসককে দেওয়া হয়।

তবে পুরনো যারা এই ক্রীড়াঙ্গনের রক্ষনাবেক্ষনের দায়িত্বে ছিলো তাদেরকে পুনরায় বহাল রাখা হবে কি না তা পরিস্কার নয়।সামনের লীগ থেকেই যেন খেলা পড়ে বারাসত বিদ্যাসাগর ক্রীড়াঙ্গনে তার জন্য দ্রুত কাজ সম্পন্ন করার নির্দেশ মন্ত্রীর। আগামী মরসুম থেকে আইএফএ ও প্রথম ডিভিশনের ফুটবল খেলা গুলি হবে বারাসত বিদ্যাসাগর ক্রীড়াঙ্গনে এমনই আশ্বাস রাজ্যের ক্রীড়া মন্ত্রীর।