প্রশ্নের উত্তর না বলায় ইছাপুরে মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীকে বেদম প্রহার

অবতক খবর,৯ ফেব্রুয়ারি: প্রশ্নের উত্তর না বলায় মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীকে বেদম প্রহার করার অভিযোগ উঠল অন্যান্য পরীক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে। নোয়াপাড়া থানার ইছাপুরের ঘটনা। জানা গিয়েছে, ইছাপুর নর্থ ল্যান্ড হাই স্কুল ও গারুলিয়া মিল হাই স্কুলের সিট পড়েছে ইছাপুর বিভু কিঙ্কর হাই স্কুলে। গত ৫ ফেব্রুয়ারি ইতিহাস পরীক্ষার দিন ইছাপুর নর্থ ল্যান্ড হাই স্কুলের ছাত্র শুভ বর্মনকে গারুলিয়া মিল হাই স্কুলের দু-তিনজন ছাত্র উত্তর বলে দিতে বলেছিল। কিন্তু শুভ ওদেরকে উত্তর বলে সাহায্য করেনি।

অভিযোগ, পরীক্ষা কেন্দ্রে থেকে বেরোতেই বিভু কিঙ্কর স্কুলের কাছেই শুভকে গারুলিয়া মিল হাই স্কুলের তিন-চার মারধোর শুরু করে। সেইসময় শুভ-র এক সহপাঠী পুলিশকে জানালে পুলিশ আক্রমনকারীদের হটিয়ে দেয়। আক্রান্ত ছাত্রের পিতা কালু বর্মনের অভিযোগ, পুলিশ ওদেরকে সরিয়ে দেওয়ার পর স্কুল থেকে ১৫০ মিটার দূরে একটা জিমের সামনে গারুলিয়া মিল হাই স্কুলের একদল ছাত্র ছেলেকে ব্যাপক মারধোর করে। পরদিন ছেলেকে কলকাতার আর জি কর হাসপাতালে ভর্তি করি।

বৃহস্পতিবার রাতে ছেলেকে হাসপাতাল থেকে বাড়িতে এনেছি। ওইদিন রাতেই নোয়াপাড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি। কালু বাবুর দাবি, হাসপাতালে ভর্তি থাকায় ছেলে ভূগোল ও অংক পরীক্ষা দিতে পারেনি। এদিন জীবন বিজ্ঞান পরীক্ষা খুব কষ্টে দিয়েছে। মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীকে বেদম প্রহারের ঘটনায় জড়িতদের কঠোর শাস্তির দাবিতে সরব তাঁর পরিবার ও প্রতিবেশীরা। জানা গিয়েছে, আক্রান্ত পরীক্ষার্থী গারুলিয়া পুরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের নিরঞ্জন নগরের বাসিন্দা। মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী শুভর মা বলেন, আমার ছেলেকে ওরা মারলো কিন্তু ওরা দিব্যি পরীক্ষা দিয়ে যাচ্ছে ।আমার ছেলেটাই পরীক্ষা দিতে পারল না। পুলিশ কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

Leave a Reply