পুরীতে বেরাতে গিয়ে মর্মান্তিক মৃত্যু শ্রীরামপুরের বাসিন্দা

অবতক খবর,৫ মেঃ তিন তারিখ বেরিয়ে পরদিন পুরীর হোটেলে পৌঁছেই ফোন করে অরিন্দম মাকে বলেছিলেন ভালোভাবে পৌঁছে গেছি,ভিডিও কলে ঘরের ছবিও দেখিয়েছিলেন।সেই শেষ কথা।বিকালে শ্রীরামপুরের বাড়িতে ছেলের মৃত্যুর খবর এলো।শোকোস্তব্ধ শ্রীরামপুরের আরো এক পরিবার।

শ্রীরামপুর বঙ্গ লক্ষ্মী বাইলেন এলাকার বাসিন্দা অজয় দাস ও অরিন্দম দাস তারা মোট ছয় বন্ধু একসঙ্গে পুরী বেড়াতে গিয়েছিলেন।

গতকাল হোটেলে পৌঁছে বাড়িতে ফোন করে খবর দেন তারা।দুপুরে সমুদ্রে স্নান করতে নামেন।চারজন উঠে এলেও অজয় আর অরিন্দম তলিয়ে যায়।

অরিন্দম ইনসুরেন্স এজেন্টের কাজ করতেন,তার মা সুদীপ্তা দাস বলেন,ছেলে হোটেলে ঢুকে ফোন করে বলল মা ভালো হোটেল পেয়েছি।একুশ’শো টাকা ভাড়া।এর পর আর যোগাযোগ হয়নি।রান্নাবান্না করেছে বারোটার পর হয়তো স্নান করতে জলে নেমেছে।পাঁচটার পর থানা থেকে ফোন করে বলল, আপনার ছেলে মারা গেছে।আমি এখন কি করব,ছেলে ছাড়া কি করে থাকব।

অজয়ের দাদা সুভাষ বলেন,ভাই টোটো চালাতো।সময় পেলে বন্ধুদের সঙ্গে বেড়াতে যেত।এর আগে আট বার পুরী গেছে ওরা।এবার যে কি হল!