পড়াশোনার বালাই নেই,নামেই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

হক জাফর ইমাম :: অবতক খবর :: মালদা:: পড়াশোনা হয় না স্কুলে,নামেই সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। ছোট ছোট শিশুদের দিয়ে স্কুল ঘর থেকে মাঠ পরিষ্কার করানো হয় এই সরকারি প্রাথমিক স্কুলে।

স্কুল শিক্ষকেরা এমনই নিধান দিয়েছেন ছোট ছোট শিশুদের। তাই প্রতিদিন রেওয়াজ মত শিশুরা বিদ্যালয়ে আসে আর ঝাঁটা হাতে ঝাড় দেয় বিদ্যালয় ক্যাম্পাস। মালদা জেলার রতুয়া ১নং ব্লকের বাজিতপুর সিএস প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিবেশটা ঠিক এমনই।

এই এলাকার একটি আইসিডিএস সেন্টারে যাওয়ার সময় রতুয়া ১নং ব্লক আধিকারিকের নজরে পড়ে দৃশ্যটি। এরপর লজ্জা পেয়ে ক্যামেরা থেকে মুখ লুকিয়ে এলাকা ছাড়েন।

এই বিদ্যালয়ে ১২৪জন ছাত্র ছাত্রী রয়েছে। চার জন শিক্ষক ও এক পার্শ্ব শিক্ষক রয়েছে। ঘর রয়েছে পাঁচটি। প্রতিদিন বিদ্যালয় সকাল দশটায় খোলে। ছাত্র ছাত্রী উপস্থিত হয়। কিন্তু শিক্ষকেরা কোনদিন সময় মতন আসেন না বলে অভিযোগ অভিভাবকদের।

ছাত্র ছাত্রীদেরও অভিযোগ পঠন পাঠন হয় না স্কুলে। বিদ্যালয়ে আসে আর শিক্ষকদের আদেশমত ঝাঁটা হাতে বিদ্যালয় ক্যাম্পাস ঝাড় দেয়। তারপর খেলাধুলা করে বাড়ি চলে যায়।বিদ্যালয়ের পার্শ্ব শিক্ষক কমলা কুন্ডু জানান ঝাঁড় দেওয়ার কোন নির্দেশ দেওয়া হয় নি।

ছাত্র ছাত্রীরা নিজেরাই ঝাঁড় দেয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জীবন দাস জানান এমন কোন নির্দেশ দেওয়া হয় নি। ছাত্র ছাত্রীরা নিজেরা ঘর নোংরা করে। আর তারা নিজেরাই পরিষ্কার করে।দেরী করে স্কুলে তারা আসেন না। পঠন পাঠন হয় স্কুলে।

তবে অভিভাবকদের অভিযোগ এই স্কুলে পঠন পাঠন নয়। ছাত্র ছাত্রীদের ঝাঁড় দেওয়া শেখানো হয়।