অবতক খবর,১২ই নভেম্বর: নৈহাটি বিজয়নগরের ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে বিজেপি নেতা পাপ্পু মাহাতো সহ প্রায় ১২৫ জন সক্রিয় কর্মী নৈহাটি বিধানসভার সদস্য তথা বিধায়ক পার্থ ভৌমিকের হাত ধরে তৃণমূলে যোগদান করলেন। সেই সময় উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল জেলা সাধারণ সম্পাদক ও অবজারভার সুবোধ অধিকারী, নৈহাটি পৌরসভার পৌরপ্রধান অশোক চ্যাটার্জী, ২১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর‌ সনৎ দে। এক প্রশ্নের উত্তরে সুবোধ অধিকারী জানান, ‘বিজেপি জোর করে মানুষের উপর এনআরসি লাগু করার ভীতি, বেকার ছেলেদের চাকরির ভাওতা, জিরো ব্যালেন্সে ব্যাংকের পাস বইতে দেশের নাগরিকদের ১৫ লক্ষ টাকা করে জমা করার আশ্বাসের বিরুদ্ধে, মমতা বন্দোপাধ্যায়ের উন্নয়নের ধারা সচল রাখার প্রয়োজনীয়তা ভেবে পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত জেলায় দলে দলে মানুষ তৃণমূলের ছত্রছায়ায় আসতে শুরু করেছেন।’ সেই সঙ্গে তিনি ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং-কে দাঙ্গাবাজ বলেন এবং গোটা ভারতবর্ষে বিজেপি যে ৫২টি সরকারি প্রতিষ্ঠানকে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে পরিবর্তন করেছে তার বিরোধিতাও করেন। অন্যদিকে বিধায়ক পার্থ ভৌমিক বলেন, ‘২৩ শে মে-র আগে যারা বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন তারাই আবার দলে দলে তৃণমূলে যোগদান করছেন। কারণ মমতা ব্যানার্জীই পারেন পশ্চিমবঙ্গের উন্নয়নের ধারাকে বজায় রাখতে এবং সব ধর্ম, বৈচিত্র্য, ঐক্যের মাঝখানে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জাতির বসবাস সুরক্ষিত করতে।’ সেই সঙ্গে তিনি বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের অরাজনৈতিক বক্তব্যকে গুরুত্ব না দেওয়ার অনুরোধ রাজ্যবাসীকে করেন।

1 COMMENT

Comments are closed.