নাটক যখন অস্ত্র/তমাল সাহা

শীতের রাতে অন্য নাটকের মহড়া চলছে। সফদার হাসমি গলায় মাফলার জড়িয়ে জেগে আছে। শোর উঠেছে হল্লা বোল! হল্লা বোল!

নাটক যখন অস্ত্র
তমাল সাহা

তীব্র শৈত্যের প্রহরে আগুন চাই
নাটক হবে জ্বালানি।
অভিনয়ের নৈপুণ্যে সচেতন জনতা
আকাশ ফালাফালা করে কড়াৎ কড়াৎ গর্জনে মেতে উঠবে অশনি।

নাটক অস্ত্র হতে পারে
হতে পারে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে খরশান তরবারি
মানুষের পক্ষে দাঁড়িয়ে
ঘোষণা করে তীব্র জেহাদ
তখন কুশীলবকে ছেড়ে দেবে কি রাষ্ট্রীয় জল্লাদ?

প্রকাশ্যে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে নাটক
মুক্তমঞ্চে কুশীলবের দুর্দান্ত অভিনয়
সংক্ষুব্ধ উত্তেজনা ধমনী প্রবাহে
দশক পূর্ণ পথ-অঙ্গন
ক্লাইম্যাক্স সংলাপ,স্পষ্ট উচ্চারণ….
ওৎ পেতেছিল রাষ্ট্র
প্রকাশ্যে অস্ত্র হাতে ঘাতকের আগমন।

নাটকীয় অপরাধে
মানুষের পক্ষে অভিনয়ের অন্যায়
রাষ্ট্রবিরুদ্ধতার কারণে
কুশীলব হয়ে গেল খুন।
প্রমাণিত হলো নাটকও অস্ত্র হতে পারে
যার ভেতর সঞ্চিত বিদ্রোহের আগুন।

মুক্ত জনপদে আসল নাটক নামাও
নামাও নাটক পথ-অঙ্গনে
নাটককে নিয়ে চলো ময়দানে
অভিনয় করো মানুষের মাঝখানে।

জাগো! জাগো!
অত্যাচারিত মানুষ, শোষিত আদমি—
রক্তাক্ত দেহে অন্তিম সংলাপ তার
দুর্জয় অভিনেতা সফদার হাসমি।