দুয়ারে রেশনে আজব ছবি দেখা গেল মালদহের পাকুয়ায়

অবতক খবর,৯ নভেম্বর: দুয়ারে রেশনে আজব ছবি দেখা গেল মালদহের পাকুয়ায়। খাদ্য সামগ্রীর বদলে রেশনে মিলছে টাকা। সে টাকা গুনে গুনে দিচ্ছেন খোদ ডিলার নিজেই। বুধবার সকালে রেশনের এমনই ছবি প্রকাশ্যে আসতেই হইচই পড়ে যায় জেলার প্রশাসনিক মহলে। পুলিশের পাশাপাশি ঘটনাস্থলে পৌঁছন বামনগোলার ফুড ইন্সপেক্টর মহম্মদ আলমেবাশেরুল। গ্রাহকদের সুবিধার্ধে দুয়ারে রেশন চালু করেছে রাজ্য সরকার। এক বছর ধরে মালদাতেও সে প্রকল্প চলছে। তবে পাকুয়ায় কামাতিপাড়ায় দুয়ারে রেশনের কোনও চিহ্ন নেই। নেই ফ্লেক্স, ফেস্টুন কিংবা খাদ্য সামগ্রী।

রেশন ডিলার বিভা রায়ের ছেলে ঝঙ্কারেশ রায় কর্মীর পাশে দাঁড়িয়ে গ্রাহকদের হাতে হাতে দিচ্ছেন নগদ টাকা। এমনই অভিযোগ গ্রাহকদের। তাঁদের দাবি, রেশনের খাদ্য সামগ্রী আটা,চালের মান খুবই নিম্নমানের। তাই, চাল, আটা খোলা বাজারে বিক্রি করতে দিতে হয়। তবে রেশন ডিলার নিজেই রেশন দোকানে বসে আটা, চালের মূল্য ধরে টাকা দিয়ে দিচ্ছেন। যদিও রেশনে খাদ্য সামগ্রীর বদলে টাকা দেওয়ার কোনও নিয়ম নেই বলে জানিয়েছেন খাদ্য সরবরাহ দফতরের কর্তারা। রেশন ডিলারের দোকান এবং গোডাউনেও যান তাঁরা।