তিন মাস যাবৎ স্কুলে অনুপস্থিত থেকেও নিয়মিত বেতন-ভাতা তুলে চলছেন হাসান প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক

অবতক খবর,করণদিঘি,১১ সেপ্টেম্বরঃডালখোলা থানার গোয়ালপোখর ২ ব্লকের সুর্য্যাপুর ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের হাসান প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক সহকারী শিক্ষক দীর্ঘ তিন মাস যাবৎ নিজ কর্মস্থলে অনুপস্থিত থেকেও নিয়মিত বেতন-ভাতা তুলে চলছেন। অভিযুক্ত সহকারী শিক্ষকের নাম ডুকন বিশ্বাস। বিদ্যালয় থেকে তার বাড়ির দুরত্ব আনুমানিক তিন কিলোমিটার। হাসান গ্রামের বাসিন্দা বরুন বিশ্বাস গত তিন মাস থেকে হাসান প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক ডুকন বিশ্বাস এক দিনও স্কুলে আসেন নি। জুন মাসে হাজিরা খাতায় তাকে অনুপস্থিত দেখানো হয়। তার পরেও মাসিক বেতন সহ সরকারি সুবিধা কি ভাবে পাচ্ছেন? এবিষয়ে বিদ্যালয়ের ভার প্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মিহির কুমার বিশ্বাস বলেন বিদ্যালয়ে চার জন নিয়মিত শিক্ষক ও এক জন পার্শ্ব শিক্ষক রয়েছেন। জুন মাস থেকে ডুকনবাবু বিদ্যালয়ে আসছেন না কোন রকম ছুটি সহ মেডিকেল ছাড়াই। মেডিক্যাল নিয়ে থাকলেও কোন কাগজ পত্রর নকল স্কুলে জমা করেনি। কোনো রকম ছুটি ছাড়াই উনি মাসের পর মাস বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত থাকেন কি ভাবে তা নিয়ে লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন বিদ্যালয় পরিদর্শককে। এর জন্য সহযোগিতা করছেন সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয় পরিদর্শক অঞ্জন পালচৌধুরী এমনি অভিযোগ তুলে সরব হয়েছেন গ্রামের বাসিন্দা বরুন বিশ্বাস। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ডুকন বিশ্বাস নিজ স্কুলে অনুপস্থিত থেকে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয় পরিদর্শকের সহযোগিতায় নিয়মিত বেতন-ভাতা তুলছেন। কোনো রকম ছুটি ছাড়াই ডুকন বিশ্বাস মাসের পর মাস স্কুলে অনুপস্থিত থেকে মাস মাইনে তুলছেন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন এলাকার বাসিন্দারা পাশাপাশি স্থানীয়রা জানান বিদ্যালয়ের কক্ষগুলোর ছাদের চাঙ্গর খসে পড়ছে যে কোন মুহুর্তে বড় দুর্ঘটনার কবলে পড়তে পারেন কচিকাঁচারা।

গোয়ালপোখর ২ ব্লকের বিডিও কানাইয়া কুমার রায় বলেন বিষয়টি জানা ছিল না, বিদ্যালয় পরিদর্শকের কাছ থেকে খোঁজ নিয়ে বলব।

উত্তর দিনাজপুর জেলা তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠনের সভাপতি গৌরাঙ্গ চৌহান বলেন একজন শিক্ষক তিন মাস স্কুলে না এসে কি ভাবে বেতন সহ সরকারি সুবিধা পাচ্ছেন তা আমার জানা নেই। এবিষয়ে স্থানীয় বিদ্যালয় পরিদর্শক কি জেগে ঘুমাচ্ছেন? অবিলম্বে ও-ই শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হোক। চাকুলিয়া চক্রের বিদ্যালয় পরিদর্শক অঞ্জন পালচৌধুরী বলেন, জুলাই মাসে হাসান প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ডুকন বিশ্বাসকে সোকজ করা হয়েছে। উনি মেডিকেল লিভয়ে রয়েছেন । চলতি মাসে স্কুলে না উপস্থিত হলে বেতন বন্ধ করা হবে।

বিদ্যালয় পরিদর্শকের মন্তবের পরিপ্রেক্ষিতে স্থানীয় বাসিন্দারা বরুন বিশ্বাস রথিন বালারা বলেন, ডুকন বিশ্বাস মেডিকেল লিভয়ে থাকলে ইলেকশন ডিউটি করলেন কি ভাবে?