ছড়িয়ে জড়িয়ে রবীন্দ্রনাথ/তমাল সাহা

কোথায় নেই তুমি

রবিপক্ষ–৩

ছড়িয়ে জড়িয়ে রবীন্দ্রনাথ
তমাল সাহা

১) এদের মধ্যে তিনি

এরা কারা?
এরা আদিবাসী জনজাতি।
এদের মধ্যেও রবীন্দ্রনাথ জাগিয়েছিলেন সাড়া।
কলমে কর্মে ক্রিয়ায় রবীন্দ্রনাথ আমাদের ভাষা।
আমি তার কাছে হাতে কলমে শিখি
তত্ত্বাবাগীশ তোমরা
আমাকে কী রাজনীতি শেখাবে,
সে তো সর্বনাশা!

২) বুর্জোয়া কবি

আমি তো নিজেই বলেছিলাম,
আমি জাত-বুর্জোয়া!
এখন তো দেখছি
আমাকেও লাগছে কাজে,
আমায় নিয়ে খেলছিস ভোট জুয়া!

আমি তো জীবনে
নিজেই দিইনি কোনো ভোট।
নে, আমাকে পণ্য বানিয়ে
যত পারিস ফয়দা লোট!

৩) প্রিয়েষু রবি

বাকি দিন আমরা কী করি কে জানে?
নিশ্চিত থাকি অনেক দূরে সরে।
পঁচিশে বৈশাখ!
খোল করতাল বাজিয়ে শাঁখ
রবীন্দ্রনাথ! রবীন্দ্রনাথ!
আমাদের প্রিয় রবীন্দ্রনাথ দেয় হাঁক
তাঁর কথা আমাদের খুব মনে পড়ে।

সে কী পড়িমরি, আমাদের দায়!
রবীন্দ্রনাথ ছাড়া কী দেশকে বাঁচানো যায়?

৪) একক

পৃথিবীতে
একটাই সূর্য একটাই চন্দ্র একটাই আকাশ।
পৃথিবীর বুকে বয়ে যায় বায়ু
কতক্ষণ আর তার আয়ু!
সব ঋতুতেই তার প্রলম্বিত শ্বাস
উচ্ছ্বাসে পূর্ণ প্রাণ রবীন্দ্র বাতাস।