গলার নলি কাটা এক মহিলার দেহ উদ্ধারে চাঞ্চল্য মন্তেশ্বরে

অবতক খবর,১৫ অক্টোবর,জ্যোতির্ময় মন্ডল,পূর্ব বর্ধমান:গলার নলিকাটা এক মহিলার দেহ উদ্ধার হয়েছে মন্তেশ্বরে চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে । পুলিশ জানায় মন্তেশ্বরের জামনা পঞ্চায়েতের নতুন গ্রামে এক কৃষকের খামারবাড়ি থেকে মহিলার দেহটি উদ্ধার হয়েছে। এখনো পর্যন্ত মহিলার নাম জানা যায় সোনামনি হেমব্রম, আনুমানিক বয়স প্রায় ৪৫ , বলে জানিয়েছে পুলিশ। মন্তেশ্বর থানা সূত্রে জানা গেছে স্বামী স্ত্রী পরিচয় দিয়ে ধৃত মানিককের এসে নতুন গ্রামে এক কৃষকের বাড়িতে খেতমজুরের কাজে যুক্ত হয়েছিলেন ওই মহিলা ।শনিবার সন্ধ্যা নাগাদ তার গলাকাটা দেহ কাজ করা ওই চাষির খামারবাড়িতে পড়ে থাকতে দেখে ওই চাষী সহ এলাকার মানুষজন।

প্রথমে খবর যায় স্থানীয় সিভিক পুলিশকে। খবর যায় মন্তেশ্বর থানায়। মন্তেশ্বর থানার পুলিশ দেহ উদ্ধার করে মন্তেশ্বর ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনায় আটক করা হয় ওই মহিলার সঙ্গে থাকা মনিক কে । পরে জিজ্ঞাসাবাদের পর স্বামীর পরিচয় দিকে থাকা মানিক ভুঞ্জা নামে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে মন্তেশ্বর থানার পুলিশ ধৃত মানিক ভুঞ্জার দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার তপনের বাসিন্দা, মানিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশ জানায় ময়নাতদন্তের জন্য ওই মহিলা দেহ বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে মন্তেশ্বর থানার পুলিশ পাশাপাশি ঘটনায় অভিযুক্ত মানিক কে আজ কালনা আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।