খুঁটিতে বেঁধে বিজেপি কর্মীকে মার

অবতক খবর,৩০ সেপ্টেম্বর,মালদা: খুঁটিতে বেঁধে বিজেপি কর্মীকে মার। আরও জানা গেছে তিনি উত্তর মালদার সাংসদ খগেন মুর্মুর অনুগামী।

চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নামে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতানোর অভিযোগ। ব্যবসা করার নাম করেও মোটা অংকের টাকা আত্মসাৎ। মালদহে খুঁটিতে বেঁধে মার বিজেপি কর্মীকে। ৩৬ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ। মালদহের হবিবপুরের বক্সীনগরের ঘটনা। মোহর সরকার নামে এক ব্যক্তিকে খুঁটিতে বেঁধে রাখা হয়। চলে মারধর। মারধর করতে দেখা যায় মহিলাদেরও।

 

অন্তত ২৪ লক্ষ টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার অভিযুক্তের। ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা এলাকায়। খবর পেয়ে এলাকায় হবিবপুর থানার পুলিশ। পুলিশের উপস্থিতিতেই টাকা নেওয়ার কথা শিকার অভিযুক্তের।

 

জানাগিয়েছে, অভিযুক্ত ব্যক্তি মোহর সরকার মালদহের হবিবপুরের মধ্যমকেন্দুযার বাসিন্দা। ২০১৮ সালে পঞ্চায়েত নির্বাচনের সিপিএমের টিকিটে এলাকায় প্রার্থী হন তিনি। দীর্ঘদিন ধরে বর্তমান বিজেপি সাংসদ খগেন মুর্মুর ঘনিষ্ঠ বলে এলাকায় পরিচিত এই মোহর সরকার। ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের আগে খগেন মুর্মুর দলবদলের সঙ্গেই তিনিও বিজেপিতে যোগ দেন। প্রতারিত পরিবারের অভিযোগ, প্রথমে আইসিডিএসে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে আট লক্ষ টাকা নেয় ওই ব্যক্তি। এরপর ধান, পাট, সরষে ইত্যাদি ব্যবসা কথা বলে জমির ভুয়ো কাগজ দিয়ে আরও বেশ কয়েক লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়। প্রায় তিন বছর ধরে বারবার টাকা ফেরতের জন্য দিন বদল করছিল অভিযুক্ত। মাঝে বেশ কিছুদিন বেপাত্তাও হয়ে যায়। আজ এলাকায় ফিরেছে শুনে প্রতারিত পরিবার ও গ্রামবাসীদের একাংশ ওই ব্যক্তিকে ধরে লোহার খুঁটিতে বেঁধে রাখেন। চলে মারধর। ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছলে পুলিশের উপস্থিতিতেই টাকা ফেরতের কথাও জানায় অভিযুক্ত। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে হব্বিপুর থানার পুলিশ।