খরগ্রাম থানার দিয়ারা গ্রামের শ্মশানকালী মাতার পূজা মহা ধুম ধাম এর সঙ্গে অনুষ্ঠিত হলো

অবতক খবর,১৩ ডিসেম্বর: খরগ্রাম থানার দিয়ারা গ্রামের শ্মশানকালী মাতার পূজা মহা ধুম ধাম এর সঙ্গে অনুষ্ঠিত হলো।

মুর্শিদাবাদ জেলার খরগ্রাম থানার অন্তর্গত দিয়ারা গ্রামের পূজা দ্বি শতাব্দি প্রাচীন । এই পূজা প্রথম শুরু হয়েছিল দিয়ারা গ্রামের উত্তর বাহিনী দ্বারকা নদীর ধারে শিমুলতলায়। লোকশ্রুতি তারাপীঠের তারা মায়ের পাগল ছেলে সাধক বামাক্ষ্যাপা একবার দক্ষিনেশ্বর যান শ্রী রামকৃষ্ণ দেবের সঙ্গে দেখা করার জন্য । তখন তিনি পায়ে হেঁটে এই দিয়ারা গ্রামের উপর দিয়ে দক্ষিণেশ্বর গেছিলেন। পথের ক্লান্তি দূর করার জন্য এই দিয়ারা গ্রামের শিমুলতলায় ঘন্টা খানেক বিশ্রাম নিয়েছিলেন বামাক্ষ্যাপা।তারপরেই এই শিমুলতলায় মায়ের আবির্ভাব হয়। পরবর্তীকালে স্বপ্নাদেশ দেন দ্বারকা নদীর ধার থেকে গ্রামের প্রান্তে মন্দির প্রতিষ্ঠা করার।বর্তমানে তিনি শ্মশান কালি রূপেই পুজো গ্রহণ করেন। এই পূজার বৈশিষ্ট্য হল বর্তমান মন্দিরে পুজো শুরু করে, শিমুলতলায় পুজো হয় তারপরে আবার বর্তমান মন্দিরে পুজো শেষ হয়। এই পূজা উপলক্ষে বসে একদিনের মেলা এবং বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আসর। শ্মশানকালী পূজার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন খরগ্রাম থানার ওসি সুরজিৎ হালদার, পূর্ত কর্মদক্ষ সুপ্রিয় ঘোষ এবং জেলা পরিষদের সদস্য শাশ্বত মুখার্জি সহ বিশিষ্টজনেরা ।