কোন রকম দ্বন্দ্ব রেয়াত করা চলবে না। নতুন যেমন দরকার, পুরোনোদেরও রাখতে হবে,বার্তা মমতার

অবতক খবর,২৮ ডিসেম্বর: কোন রকম দ্বন্দ্ব রেয়াত করা চলবে না। নতুন যেমন দরকার, পুরোনোদেরও রাখতে হবে।

ছোটো বড় কেই নিজে ঠিক করে না। দুর্দিনে যারা মানুষের পাশে থাকবে তারাই । মন্ত্রীদের বেশি করে এলাকা ঘোরার কথা বলেন। দরকারে চা’এর দোকানে গিয়ে সংযোগ বাড়াতে বলেন মমতা।

নির্বাচন আসলেই বিজেপি প্রতিশ্রুতি দেয়। আমরা যা বলি সেটা রক্ষা করি। মিথ্যে ভাওতা দেয়।

আপনারা সকলেই নাগরিক। তা না হলে কিভাবে রেশন পাচ্ছেন, ভোট দিচ্ছেন। এটা একটা ছলনা। উদ্বাস্তু কলোনিতে পাট্টা দিচ্ছে।

এরা ডাকাতদের সর্দার। এক একজন কোটি টাকার মালিক। বিজেপি করলেই ওয়াশিং মেশিন, তৃণমূল করলেই চোর? এজেন্সির গণতন্ত্র চলছে। আজ আছে কাল থাকবে না। ইন্ডিয়া জোট সারা ভারতে থাকবে, আর বাংলায় তৃণমুল থাকবে। অন্য কোন দল নয়। বালুকে গ্রেফতার করেছে যাতে, সে পার্টির কাজ করতে না পারে।
১৫০ জন সাংসদকে বহিষ্কার করেছে, যা কোনদিন হয় নি। যা চলছে তা হল সন্ত্রাস, অত্যাচার।

কোন কোন এলাকায় কেউ কেউ কেউকাটা বলে মনে করেন।

বিজেপিকে রাজাকারের সাথে তুলনা করে মমতা বলেন ২০০০ টাকার নোট বাতিল ঘোষণা দিয়েও এখন বলছেন হবে না। এই টাকা তাদের ঘরে তুলে রেখেছে।

তৃণমুল কোন ভেদাভেদ করে না। কিন্তু কেউ যদি ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করে না সেটা চলবে না।

কোর কমিটি তৈরি করেছি। যে কমিটির চেয়ারম্যান করা হয়েছে নির্মল ঘোষকে। প্রতি সাত দিন পর রিপোর্ট জমা দিতে হবে।

বসন্তের কোকিল এসেছে। সংখ্যা লঘুরা সাবধান। বাংলাকে তৃণমূলের হাতে রাখতে হবে। বিজেপি জিতলে অত্যাচার হবে। আমাদের ভুল বুঝবেন না। আপনাদের কেউ ক্ষতি করার চেষ্টা করলে আমি পাহারাদার হয়ে থাকবো।