কিষানের রণসজ্জা/তমাল সাহা

ঐতিহাসিক কৃষক আন্দোলনকে সামনে রেখে
মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্ত-র জন্মদিন স্মরণে

কিষানের রণসজ্জা
তমাল সাহা

স্বদেশে কিষান আজি মহারুদ্র তেজে—
কহিলা, কিষান নেতা,”এ ভারত-পুরে
কৃষিজীবী আছো যত,সাজো শীঘ্র করি
পদাতিক রণরঙ্গে ভুলিব এ জ্বালা—
এ বিষম জ্বালা যদি পারি রে ভুলিতে।”

উথলিল সীমাতলে দুন্দুভির ধ্বনি,
শৃঙ্গনিনাদক যেন, প্রলয়ের কালে,
বাজাইলা শিঙ্গবরে, গম্ভীর নিনাদে।
যথা সে ভৈরব রবে কৈলাস-শিখরে
সাজে আশু ভূতকূল, সাজিলা চৌদিকে
কিষান; টলিল দিল্লি বীরপদভরে।
বাহিরিল তেজবান ট্রাক্টারসমূহ বেগে

আইল পতাকী দল, উড়িল পতাকা,
ধূমকেতুরাশি যেন উদিল সহসা
আকাশে।কিষান বাদ্য বাজিল চৌদিকে।
যথা দেব তেজে জন্মি দানবনাশিনী
চণ্ডী,দেব-অস্ত্রে সতী সাজিলা উল্লাসে।
অট্টহাসি, দিল্লিপথে সাজিলা ভৈরবী
শস্যজীবী—অনীকিনী—উগ্রচন্ডা রণে।
গজরাজ-তেজ ভুজে; অশ্বগতি পদে;
জনমিল নয়নাগ্নি সাঁজোয়ার তেজে।
থর থর থরে ভূমি কাঁপিলা সঘনে;
কল্লোলিলা উথলিয়া সভয়ে জলধি;
অধীর ভূধরবজ্র,—ভীমার গর্জনে,—
পুন যেন জন্মি চণ্ডী নিনাদিলা রোষে।

কৃতজ্ঞতাঃ মেঘনাদবধ কাব্য