কাছে এসো বাসন্তিকা!-তমাল সাহা

আজ ঋতুরাজ বসন্তের একটি দিন। বসন্ত মাস নৈকট্যের দিন। ওরা বলছে টেডি ডে!

কাছে এসো বাসন্তিকা!
তমাল সাহা

আজ বসন্ত এসেছে অঙ্গনে তোমার। আকাশে ভাসছে বসন্তের সুর। গাছে গাছে লেগেছে হিল্লোল। শিমুল, পলাশ,মান্দার, অশোক, কৃষ্ণচূড়া সেজেছে অপূর্ব সাজে।

নিশ্চিত এটা নিশ্চিত বয়ঃসন্ধিক্ষণের দিবস মেয়েরা পরবে বাসন্তী শাড়ি। গায়ে নিশ্চিত প্রাথমিক যৌন গন্ধটুকু থাকবে। ছেলেরা তাকিয়ে থাকে এই দিকে। বাঙালির এইটিই প্রথম কিশোর কিশোরীদের মুক্ত হবার দিন। স্কুলে আড়চোখে কথা হবে। রাস্তায় ইশারায় কথা হবে। সন্ধ্যা লাগলে কিশোর কিশোরীদের ভিড় হবে স্কুলের কম্পাউন্ডের কোনো গোপন কোণায়। এই যে মিলন, এই যে মধুর দৃশ্য তা নাকি আজ টেডি ডে। সাহেবি দিন। এটাকে বসন্ত দিবস বললে কি হতো!

এই সপ্তাহ জুড়ে সাহেবিয়ানার দিন। চলে গেছে রোজ ডে, চলে গেছে প্রপোজ ডে। চলে গেছে চকোলেট ডে। আজ হচ্ছে টেডি ডে। টেডি কি? তা আমরা কি আগে জানতাম? টেডি ডে পশম ভর্তি ভালুকের দিন। স্নিগ্ধ, নরম এই দিনটি। নিশ্চিত। নাহলে আজ কিশোর কিশোরী নরম হাতের স্পর্শ পাবে কেন? এর পরে আসবে প্রমিস ডে, হাগ ডে, কিস ডে, ভ্যালেন্টাইন্স ডে।

আমরা বাঙালিরা এত সব জানিনা। যৌবনের আর্তি ক্রমান্বয়ে প্রকৃতির নিয়মেই আসে। এই নামে এত সাড়া পড়ে যাওয়ার কারণ কি? এরই একটা ব্যবসায়িক, অর্থনৈতিক দৃষ্টি আছে। এই বিদেশি আমদানি দিনগুলি এখানে এনে ব্যবসা বাড়াও। সপ্তাহভর উপহারের কেনাবেচা চলে। কে কাকে উপহার দেয়?

এখন প্রশ্ন উঠেছে এত আদরের দিন, এত ভালোবাসার দিন এত ফলাও করে বিস্তৃত করা হচ্ছে কেন? সামাজিক জীবনের অন্য একটা দিক নষ্ট করে দেবার জন্য, ভুলিয়ে দেবার জন্য কি? ভ্যালেন্টাইন্স ডে। আপনি গোলাপ দিলেন, প্রপোজ করলেন, চকোলেট চুষলেন, টেডি বিয়ারকে জড়িয়ে ধরে দুজনে আলিঙ্গন করলেন। আলিঙ্গন করলেন পরস্পর দুজনার শরীর। চুম্বন করলেন। তারপর ভ্যালেন্টাইন্সের দিন পরিপূর্ণতায় চলে গেলেন।

প্রত্যেকটা দিনের এক একটা নামকরণ হল। তাহলে এর পরের দিন, এই যে এত বেকার যুবক-যুবতী, কলকারখানা বন্ধ, তবুও রাজ্য জুড়ে বিনিয়োগের গল্প, চাকরি নেই, তবুও এই চুম্বন, এই আলিঙ্গন, এই গোলাপ দেওয়া নেওয়া, এই প্রস্তাব টিঁকবে কি? তখন কি তারা পরস্পর রাস্তায় বেরিয়ে বলবে, চিৎকার করে বলবে, রাস্তায় হাঁটতে হাঁটতে বলবে দুজনা মিলেই সেই পুরুষ ও নারী, সেই কিশোর ও কিশোরী, সব ডে চলে গেল।
কি বলবে এবার ঋতম- শবনম, রূপম- রোশেনারা? আমাদের আস্তানা কোথায়, আশ্রয় কোথায়? আমাদের
চাকরি,ভাত কোথায়?

এরপর কি আসবে— জব ডে! রাইস ডে! আসল বসন্ত
কবে আসবে, বাসন্তিকা!