অবতক খবর,২৯ ডিসেম্বর: বুধবার সকালে ইকো পার্কে প্রাতঃভ্রমণে আসেন দিলিপ ঘোষ। স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে সেখানে তিনি আক্রমন করেন রাজ্যের শাসকদল কে।

মঙ্গলবার গঙ্গাসাগরের মোহন্ত বলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তিনি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চান। এই বিষয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন যে মোহন্ত রাজনীতি বোঝেন না। তিনি সবাইকে আশীর্বাদ করেন এবং এখানেও করেছেন। দিলীপ কটাক্ষ করে বলেন কলকাতা পুরভোটে যে পাপ করেছেন তা ধুতে গিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রত্যেক নির্বাচনের পরেই এটা করেন তিনি।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গঙ্গাসাগর দুয়োরানী প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সত্যিই যদি গঙ্গাসাগরের উন্নয়ন চান তাহলে নির্দিষ্ট প্ল্যান নিয়ে কেন্দ্রের সঙ্গে কথা বলুন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি আরও প্রশ্ন তোলেন যে বিগত দশ বছরে গঙ্গাসাগরে কী উন্নয়ন করেছে তৃণমূল।

গঙ্গাসাগর মেলার কোনো দায়িত্ব কেন্দ্র নেয় না, এই অভিযোগ তুলে কেন্দ্রীয় সরকারকে আক্রমন করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, গঙ্গাসাগর মেলায় বাইরে থেকে যে লোক আসে তাদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করা হয় বলে অভিযোগ করেছেন দিলীপ। তিনি দাবি করেন যে বাইরে থেকে আসা মানুষের কাছে অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়া হয় এবং অন্যদিকে জেটি ভেঙে পড়ে যায়। কোনও ডিসিপ্লিন না থাকার অভিযোগও করেছেন তিনি। দিলীপ বলেন রাজ্য সরকার চাইলেই কেন্দ্র সাহায্য করবে কিন্তু তার জন্য সদিচ্ছা থাকতে হবে।

মঙ্গলবার রাতে গোয়া সফরে গিয়েছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। অভিষেকের গোয়া সফরকে কটাক্ষ করে দিলীপ ঘোষ বলেন যে গোয়াতেই থেকে যান উনি। তিনি আরও বলেন যে বিমান কেনা হয়েছে বলে সেটা ব্যবহার করতে হবে সেই কারনে বার বার গোয়া যাচ্ছেন অভিষেক। দিলীপ দাবি করেন যে ত্রিপুরার লোক পুরভোটে উত্তর দিয়েছে এবং গোয়ার লোক আগেই বুঝে গিয়েছে। সেই কারনেই ভাঙ্গন ধরেছে তৃণমূলে। তৃণমুলের আসল রুপ সবাই বুঝে গিয়েছে বলে দাবি করেছেন তিনি।