কবিতাকে অস্ত্র করুন/তমাল সাহা

কবিতাকে অস্ত্র করুন
তমাল সাহা

রাষ্ট্রীয় অভিসন্ধি,
রাষ্ট্রীয় ষড়যন্ত্রে কবি গ্রেপ্তার।
কপালে বন্দুক ঠেকিয়ে
কবিকে নিয়ে যাওয়া হল জেলখানায়।
কবি অশীতিপর, অসুস্থ।
তার মুক্তির দাবিতে
একটি কাব্যিক লেখা লিখুন।
অগ্নিস্রাবী শব্দটির ব্যবহার বর্জন করুন।

জেল ভেঙে ছিনিয়ে আনুন
কখনোই লিখবেন না।
লিখবেন না,
বন্দুকের নলই রাজনৈতিক ক্ষমতার উৎস।
লেখাকে বারুদগন্ধে ভারি করবেন না—
কাব্যরস দূরে চলে যায়।

যদিও কবি আপাদমস্তক রাজনৈতিক,
এটা আপনি কাব্যিক মোড়কে লিখুন,
চিত্রকল্পে আঁকুন।
রাষ্ট্র লক্ষ-কোটি টাকার অস্ত্র কিনুক
অস্ত্র হিংসা ছড়ায়, এটা জানুন।
আপনি নিরস্ত্র থাকুন।

কবি জেলখানার গরাদের পাশে এসে দাঁড়ালেন।
দুটো শিকের ফাঁক দিয়ে হাত বাড়িয়ে
আমার কাঁধে হাত রাখলেন।
বললেন, অস্ত্র দিয়ে কবিতা লিখুন।
কবিতাগুলিকে অস্ত্র করুন।