উচ্চ নেতৃত্বদের সারা পাওয়ার পর কি ফের রাজনীতিতে সক্রিয় হচ্ছেন বীজপুরের প্রাক্তন বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়?

অবতক খবর,১৫ জানুয়ারি: বীজপুরের প্রাক্তন বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়কে মাঝে মাঝে রাজনীতিতে জেগে উঠতে দেখা যায়। ফের তিনি ঘুমিয়ে পড়েন। গতকালই সেইরকম দেখা গেল। তিনি কখন যে রাজনীতিতে সক্রিয় হন আর কখন যে ঘরে বসে যান,তা কিছুই বোঝা যায় না। তিনি বীজপুরের দুবারের বিধায়ক ছিলেন। বর্তমানে তিনি কাঁচরাপাড়া পৌরসভার উপ পৌরপ্রধান। তিনি জেলার একটি দায়িত্বে ছিলেন। তবে সেই দায়িত্বে এখনো আছেন কিনা তা জানা যায়নি। তাঁকে রাজনীতিতে খুবই কম দেখা যায়। অর্জুন সিং বীজপুরে এলে মাঝে মধ্যে তাঁকে দেখা যায়। তাঁকে কোন সরকারি অনুষ্ঠান কিংবা পৌরসভার কোন অনুষ্ঠানেও দেখা যায় না। তিনি যে আগামীতে কি করবেন, অর্থাৎ রাজনীতিতে থাকবেন কিনা,সক্রিয় ভূমিকায় তাঁকে দেখা যাবে কিনা তা কিছুই বোঝা যাচ্ছে না।

এরই মধ্যে গতকাল তাঁকে এই অঞ্চলের সমস্ত পুরনো এবং প্রাক্তনীদের নিয়ে আলাপ আলোচনা করতে দেখা গেল। তাঁর নিজস্ব ওয়ার্ড অর্থাৎ ৬ নং ওয়ার্ডের ওয়ার্ড অফিসে হালিশহর পৌরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান অংশুমান রায়, কাঁচরাপাড়া পৌরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান সুদামা রায় সহ মাখন সিনহা, সুভাষ চক্রবর্তী, সুজিত দাস এবং অন্যান্যদের নিয়ে চা পান এবং আলাপ আলোচনা করলেন।

সেখানে উপস্থিত এক নেতা বলেন,বেশ কিছু নেতা এতদিন তাঁকে বিভ্রান্ত করে রেখেছিলেন, কিন্তু তিনি উচ্চ নেতৃত্বদের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেন এবং উচ্চ নেতৃত্বরা তাঁকে বলেন,’তুমি তোমার মতো রাজনীতি করো। তুমি যেটা ঠিক মনে করো সেটাই করো।’ কিন্তু তিনি রাজনীতি বিষয়ে আগামী দিনে কি করবেন সে বিষয়ে পরিষ্কার হয়েছেন। সেই কারণে তিনি সকলকে নিয়ে বসে আলাপ আলোচনা করলেন।

তবে জানা গেছে,সকলেই একটিই কথা বলেছেন যে, শুভ্রাংশু তুমি সক্রিয় রাজনীতিতে নামো,আমরা তোমার সঙ্গে আছি।

এবার তিনি কি করবেন? সক্রিয় রাজনীতির ময়দানে নামবেন নাকি ফের তাঁকে ৬ মাস পর দেখা যাবে,তা সময়ই বলবে।