ইত্ত দিবস/তমাল সাহা

এতো দিবস,এতো পতাকা!এর মানে কী? কী হয় সেদিন? শুনুন

ইত্ত দিবস
তমাল সাহা

ইত্ত দিবস!
শাধীনতা দিবস, পজাতন্ত্র দিবস।
ইত্ত দিবস কুথ্যা থিকে মুরা পাই?
তুর কাছে কথাটো জানতে চাই।

দিবস মানে কি, একটু বুইলতো ভাই?

শাধীনতা দিবস মানে
পতাকার পতপত কইরে উড়ান…
তারপর সে কোত্ত গরম গরম ভাষণ!
ক্ষুদিরাম, ভগত সিং আইসলেন,
আইসলেন মাস্টারদা, বাঘা যতীন
বুড়িবলামের তীর, জালালাবাদ পাহাড়
কুত্ত সব কঠিন কঠিন উচ্চারণ।

তারপর পতাকা ধীরে ধীরে
উপরে উইঠছে তো উইঠছেই
সেদিক পানে তাকাইলম
একটা বড় কইরে মারলম সেলুট
আর তারপর মাটির দিকে চাইলম
দেখি সে কী দেশপ্রেম চইলছে রে ভাই!
দেশের নামে হরির লুট।

পজাতন্ত্র দিবস!পজাতন্ত্র মানে!
জানাইন দাও দেশে আছে
কুত্ত লক্ষ লক্ষ গরিব পজা।
আর মুরা নেতারাই হলম
ই দেশের মাতব্বর রাজা!

ই দিনও পতাকা উপরে উইঠবেক …
নেতারা বুইলবেন,
মু-ও পতাকার থিকে আরও
আরও উইঠবো উঁচুতে।
তুরা শালো গড়াগড়ি খাইবি
পইড়্যে থাইকবি মাটিতে।
ই মাটি হুলো খাঁটি রে, বুরবাক!
ই মাটিই হুলো খাঁটি…
মুরা মাংস খাইব্য, মদ খাইব্য
তুরা চুইষবি আমের আঁটি।

ইদিন তুরা অবশ্য পাইবি
কাঠি লজেন্স, দাঁইড়‍্যে দাঁইড়‍্যে চুইষবি,
খাবি কড়মর কড়মর কইর‍্যে জিলাইবি
তুরাই তো জনগণ রে, তুরাই তো দেবতা
ইসব বুলে নেতারা দিবে ধাপ্পা, টুপি।

আর পজাতন্ত্র বুঝিস লাই?
সংবিধান রে সংবিধান!
সে তো রেডরোড, দিল্লির রাস্তা বটে,
কত্তো কুচকাওয়াজ!
পেটে ভাত না থাইকলে কি হবেক
পুলিশ-মিলিটারি সে কি কসরত রে বাপ! জবরদস্ত্ পায়ের খটখট আওয়াজ।

উদিন বড়বড় লোক, কোত্ত বড়বড় পান্ডা!
দিল্লির লাল কিল্লার ওপর তিরঙ্গা—
উঁচা রহে মেরা ঝান্ডা!
কারা কারা যেন পাইল্য পদ্মশ্রী,পদ্মভূষণ,পদ্মবিভূষণ, ভারতরত্ন!
মেরা ভারত কোত্ত মহান!
মুদের তো ভুখা প্যাট
ই পেট্যে তো ভাত বাড়ন্ত।

ইসব দিনে উইথলে উঠে কোত্ত ভালোবাসা,
কুত্তো বস্ত্রদান,কম্বলদান,রক্তদান—
শালো! দেশ জুড়ে উৎসব আর উৎসবে ঠাসা।

গণতন্ত্রর সে কি দাপাদাপি রে বাপ!
ব্যান্ডে ব‍্যান্ডে বাজে
স্বদেশপ্রেম, দেশভক্তি,জাতীয়তাবোধ।
বাকি সবদিন মুদের পিঠের চামড়া
সিঁকে কাঠফাটা রোদ।
আরে শালো, নেতাদের সে কী আমোদ প্রমোদ!

শাধীনতা, পজাতন্ত্র সবদিনই
দুইটো স্লোগান উঠে গরমাগরম—
জয় হিন্দ! বন্দেমাতরম!

মুদের শ্বাস, মুদের দম
আটকাইন যাইছে
উরা বুইলছে ফ্রীডম,
মুদের উরা পাব্লিক বুইল্যে ভেঙাইনছে
আর রিপাব্লিক বুইল্যে পতপত কইরে
উড়াইনছে পতাকা।

মুরা যেদিকে তাকাই দেখি—
নাঙ্গা ভারতবর্ষ মুদের!
ভারতবর্ষ ভুখা!ভারতবর্ষ ভুখা!

Leave a Reply