অনুপস্থিত থাকার জন্য শাস্তি গুনতে হল এক অস্থায়ী বন সহায়ক কর্মীকে

অবতক খবর,২ ডিসেম্বর,মালদা:সানু ইসলাম: প্রায় এক মাস আগে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এখনো জ্বর জ্বর ভাব থাকাই একদিন অনুপস্থিত ছিলেন অফিসে। অনুপস্থিত থাকার জন্য শাস্তি গুনতে হল এক অস্থায়ী বন সহায়ক কর্মীকে। মালদা ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসের মধ্যেই অস্থায়ী বন সহায়ক কর্মীকে বাঁশ দিয়ে বেধড়ক পেটানোর অভিযোগ।

অভিযোগ উঠেছে মালদা ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসার প্রদীপ কুমার গোস্বামীর বিরুদ্ধে। ইতিমধ্যে এই ঘটনায় ইংলিশ বাজার থানায় ওই ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসারের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এদিকে আক্রান্ত বন সহায়ক কর্মী সুকুমার মন্ডল বর্তমানে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। জানা গেছে সুকুমার মন্ডল মালদার মানিকচক থানার রামনগর জোতপাট্টা এলাকার বাসিন্দা। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ায় একদিন অফিসে যেতে পারেননি তিনি।

একদিন অফিসে কেন তিনি উপস্থিত হননি তড়িঘড়ি ফোন করে পরের দিন ওই সহায়ক কর্মীকে মালদা ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসে ডেকে পাঠান রেঞ্জ অফিসার প্রদীপ কুমার গোস্বামী বলে অভিযোগ। এরপর অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করা হয় তাকে। প্রতিবাদ করায় ওই ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসার প্রদীপ কুমার গোস্বামী সহ কয়েকজন মিলে বাঁশ দিয়ে তাকে বেধড়ক পেটায় বলে অভিযোগ। হাতে এবং পায়ে চোট পাই ওই বন সহায়ক কর্মী সুকুমার মন্ডল। পরিবারের সদস্যরা সুকুমার মন্ডলকে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। ওই ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসারের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয় ইংলিশ বাজার থানায়।

তবে এই বিষয় ওই ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসার প্রদীপ কুমার গোস্বামী সংবাদমাধ্যমে কিছু বলতে চাননি। এদিকে এই বিষয়টি নিয়ে ডিভিশনাল ফরেস্ট অফিসার জিজু জেসপারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনিও এই বিষয়টি নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছেন।